রাজবাড়ীতে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থি নেতা নিহত

রাজবাড়ীতে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থি নেতা নিহত

রাজবাড়ীতে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থি নেতা নিহতরাজবাড়ী প্রতিনিধি
রাজবাড়ীতে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি সংগঠনের আঞ্চলিক কমান্ডার ছাইদুল ওরফে আমির সরদার (৩২) নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবি এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। সোমবার (১৬ এপ্রিল) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে জেলার সদরের জৌকুড়া বালুঘাট সংলগ্ন মজিদ সরদারের বালুর চাতাল এলাকায় এ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।  এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি এসএলআর, একটি বিদেশি দোনালা বন্দুক, ৩২ রাউন্ড গুলি, ২৩টি কার্তুজ, একটি ছোরা ও ছয়টি কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়। মাওবাদী বলশেভিক অর্গানাইজেশন মুভমেন্ট (এমবিআরএম) এর কমান্ডার নিহত ছাইদুল ওরফে আমির সরদার পাবনা জেলার আটঘরিয়া উপজেলার চাচকিয়া গ্রামের তাহামুদ্দিন ওরফে তানু সরদারের ছেলে। মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) বেলা সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি জানান, বন্দুকযুদ্ধে রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাকিব খাঁন, ইন্সপেক্টর জিয়ারুল ইসলাম ও কনস্টেবল পংকজ আহত হয়েছেন। প্রেস বিফ্রিংয়ে পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি জানান, সোমবার দিবাগত গভীর রাতে জেলার সদরের জৌকুড়া বালুঘাট সংলগ্ন মজিদ সরদারের বালুর চাতালের পূর্বপাশে পদ্মা নদীর পাড়ে গোপন মিটিং করছিল চরমপন্থি সংগঠন এমবিআরএম-এর সদস্যরা। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ রাকিব খানের নেতৃত্বে ডিবির একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে সর্বহারা দলের সদস্যরা গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টাগুলি চালায়। দুই পক্ষের গোলাগুলির এক পর্যায়ে চরমপন্থিরা পিছু হটে চরের বিভিন্ন দিক দিয়ে রাতের অন্ধকারে পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ছাইদুল ওরফে আমির সরদারকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে আহত অবস্থায় ছাইদুলকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আহত তিন পুলিশ আহত হয়েছেন। তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  পুলিশ সুপার আরো জানান, নিহত চরমপন্থি ছাইদুল ওরফে আমির সরদার নদীতে বিভিন্ন ট্রলারে চাঁদাবাজি করাসহ অপহরণ এবং কন্ট্রাকের মাধ্যমে খুনের সাথে জড়িত ছিল। এছাড়াও সে পাবনা জেলায় দু’টি হত্যা, দু’টি অস্ত্র ও একটি অপহরণ মামলাসহ সাতটি মামালার গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত আসামি ছিল। ইত্তেফাক/কেআই 

(function() {
var referer=””;try{if(referer=document.referrer,”undefined”==typeof referer)throw”undefined”}catch(exception){referer=document.location.href,(“”==referer||”undefined”==typeof referer)&&(referer=document.URL)}referer=referer.substr(0,700);
var rcel = document.createElement(“script”);
rcel.id = ‘rc_’ + Math.floor(Math.random() * 1000);
rcel.type = ‘text/javascript’;
rcel.src = “http://trends.revcontent.com/serve.js.php?w=75227&t=”+rcel.id+”&c=”+(new Date()).getTime()+”&width=”+(window.outerWidth || document.documentElement.clientWidth)+”&referer=”+referer;
rcel.async = true;
var rcds = document.getElementById(“rcjsload_83982d”); rcds.appendChild(rcel);
})();

© ittefaq.com.bd



Source: Ittefacq News